লোয়ার অর্ডারের দৃঢ়তায় খাদের কিনারা থেকে উঠেছে প্রোটিয়ারা

৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২২৭ রান করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

অষ্টম উইকেটে মরিস – রাবাদার ৫৯ বলে ৬৬ রানের জুটিতে খাদের কিনারা থেকে পুরো ৫০ ওভার খেলছে প্রোটিয়ারা। ৩৯ ওভারে ১৫৮/৭ থেকে ৫০ ওভার শেষে ২২৭/৯ পৌঁছেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

সপ্তম উইকেটে ডেভিড মিলার এবং পেহলুকায়োর ব্যাট থেকে আসে ৪৪ রান। ৩১ রান করে চাহালের বলে ক্যাচ এন্ড বল হয়ে আউট হন মিলার। ফেহলুকায়ো আউট হয়েছেন ৩৪ রান করে।

দলীয় সর্বোচ্চ ৪২ রান আসে ক্রিস মরিসের ব্যাট থেকে। ২৮ রানে অপরাজিত ছিলেন রাবাদা।

দিনের শুরুতে সাথদাম্পটনে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস।

ক্যারিয়ারের ৫০তম আর বিশ্বকাপ অভিষেকে আলো ছড়িয়েছেন জাসপ্রীত বুমরাহ। নিজের দ্বিতীয় এবং ম্যাচের চতুর্থ ওভারে ৬ রান করা আমলাকে রোহিত শর্মার ক্যাচে পরিণত করে প্যাভিলিয়নে ফেরান ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের নাম্বার ওয়ান বোলার। নিজের পরের ওভারেই ১০ রান করা কুইন্টন ডি ককের উইকেট তুলে নেন বুমরাহ।

তৃতীয় উইকেটে ডু প্লেসিস এবং ভ্যান ডার ডাসেনের ৫৪ রানের জুটিতে প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দিয়ে ভালোই এগুছিলো প্রোটিয়াদের ইনিংসে।

কিন্তু ২০ তম ওভারে জোড়া আঘাত হানেন যুবেন্দ্রর চাহাল। ২২ রান করা ডাসেন আর ৩৪ রান করা ডু প্লেসিস দুজনকেই বোল্ড আউট করেন চাহাল। ২৩তম ওভারে ডুমিনিকে এলবিডব্লিউ এর ফাঁদে ফেলেন কুলদিপ যাদব। দলীয় ৮৯ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে দক্ষিণ আফ্রিকা।

ভারতের হয়ে চাহাল ৪ টি, বুমরাহ, ভুবেনেশ্বর ২ টি এবং কুলদিপ ১ টি করে উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

দক্ষিণ আফ্রিকাঃ ২২৭/৯ (৫০ ওভার) মরিস ৪২, ডু প্লেসিস ৩৪, ফেহলুকায়ো ৩৪,  মিলার ৩১; চাহাল ৪/৫১, বুমরাহ ২/৩৫, ভুবেনেশ্বর ২/৪৪

Share:

Author: Tonmoy Bhowmick