পাকিস্তান জিতলে কেন একটুকরো গাদ্দাফি হয়ে পরে বাংলাদেশ!!

আজ সকালে আমার মামার সাথে বসে কথা বলছিলাম। পাকিস্তানের ম্যাচ নিয়ে কথা বলার এক পর্যায়ে তিনি একটা ঘটনার স্মৃতিচারন করলেন।

২০১৪ সালে এশিয়া কাপের কথা কি মনে আছে সবার? ৬ মাস বিরতি নিয়ে সেই ম্যাচে সাকিব ফিরেছিলেন। 326 রানের বড় স্কোর করেও ম্যাচটা জিততে পারিনি বাংলাদেশ । সেদিন অনেকেই কেঁদেছিল তবে মামা কেঁদেছিলেন অন্য কারনে। ম্যাচ শেষ করে মামা বাসা থেকে বের হয়ে আসলে মোড়ের উপর যে পরিবেশ দেখতে পেয়েছিলেন তাতে তার মনে হয়েছিলো এটা বাংলাদেশ না, এটা গাদ্দাফী স্টেডিয়ামের গ্যালারী।

বিসিবি তো একবার বাধ্য হয়ে মিরপুরে পাকিস্তানের পতাকা নিষিদ্ধ করে। অামাদের মধ্যে এতটা পাকিস্তানি প্রেমি!

শের ই বাংলা স্টেডিয়ামে যখন খেলা হয় তখন অনেক মেয়ের হাতে ” Marry Me Afridi ” লিখা প্ল্যাকার্ড দেখলে সত্যি খুব খারাপ লাগে। ৪৮ টা বছর খুব বেশি না!! ১ লাখের বেশি নারীকে গনধর্ষন করেছিলো পাকিস্তানের অার্মিরা, রাজাকাররা। অামাদের সেসব মনে নেই!!

হ্যা, এখন অনেকে বলবে যে খেলার সাথে এসব টানার কোন মানে হয়না । যদি তাই হয়, তবে শুরুটা পাকিস্তান করেছে, বাংলাদেশ নাহ্।

বাংলাদেশের সাথে খেলার দিন টস পর্যন্ত করতে আসতে চাইনি পাকিস্তানের অধিনায়ক। ভুলে গেছেন??

ভুলে গেলে উইকিপিডিয়া, গুগল থেকে 1999 বিশ্বকাপে বাংলাদেশ পাকিস্তান ম্যাচের অাদ্যপান্ত দেখে অাসেন ।

যে দেশের মানুষ আমাদের নারীদের উলঙ্গ করে বন্দুকের বেয়নেট দিয়ে যৌনাঙ্গ খুচিয়ে খুচিয়ে উদ্যম পার্টি করেছে। সেদেশের মানুষদের আমি আপনি মাথায় করে রাখি। অনেককে তো এও বলতে শুনি, ” পাকিস্তান থাকলেই ভাল হইতো ”

আম গাছে যেমন আমই ধরে, সাপের পেটে সাপই জন্ম নেই। পাকিস্তান কখনও আমাদের ভাল করেনি, করতেও পারেনা। জেনেশুনে সে দেশকে সাপোর্ট করা মানে পাকিস্তান জাতিকে সাপোর্ট করা। আফ্রিদি, আমিররা যে জার্সি পরে খেলে সেখানে বড় বড় অক্ষরে লেখা থাকে PAKISTAN !! বুকের উপর থাকে ধারন করে সাদা চাঁদের পতাকা, যে পতাকা তুলে রাজাকাররা আমাদের চোখ উপড়ে ফেলেছে। সন্তানের সামনে মাকে ধর্ষন করেছে। মায়ের সামনে তার ২ মাসের বাচ্চাকে টেনে ছিড়ে ফেলে হত্যা করেছে। পাকিস্তানিরা মেয়েদের ধর্ষন করেই খান্ত হয়নি। বুকের স্তন কেটে বন্দুকের মাথায় নিয়ে নৃত্য করেছে । হ্যা, আমরা তাদের সাপোর্ট করি।

এক কাশ্মীর নিয়ে ভারত পাকিস্তানের সাথে সম্পর্কে থাকতে চাইনা । আর আমাদের তো পুরো বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রতিও ক্ষোভ নেহাত কম না। বিপিএলে যেন পাকিস্তানি খেলোয়ার ছাড়া চলেইনা আমাদের। আমাদের অর্থ তো কম না। আইপিএল যদি পারে কেন আমরা পারিনা!!

স্বাধীনতার ৪৬ বছর পরও যারা প্রধানমন্ত্রী হত্যার উদ্দেশ্য নিয়ে সরাসরি এজেন্ট নিয়োগ দেই তারা আমাদের বন্ধু হতে পারেনা। রাস্তাগুলো তারাই আটকে দিয়েছে। আর যাই হোক, পাকিস্তান! !

না না না না না

Share:

Author: Wahed Murad

I am passionate for sports , specially in cricket and so i'll do my best to development of sports. I'm also teaching English language and trained at web design and development with fine web arts.