তাসকিন আসলে ভ্যারিয়েশন বাড়বে দলে – নাজমুল হাসান পাপন

তাসকিন আসলে ভ্যারিয়েশন বাড়বে দলে – নাজমুল হাসান পাপন

‘আমি কিন্ত আগে দেখি ১১ জন কী হচ্ছে। ১১-১২ জনের মধ্যে দেখি, ১৩ জন বড়োজোর। তারপর কী দিল আমার জানার দরকার নেই। কারণ আমি জানি এই ১৩ জনের মধ্য থেকেই স্কোয়াডটা হবে। এটা বোঝাই যায়। এদিক দিয়ে চিন্তা করলে অসাধারণ কিছু না করলে এখন যারা আছে স্কোয়াডে তারাই খেলবে।’

আবু জায়েদ রাহীকে বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকে বাদ দেওয়া হবে কি না, এ নিয়ে পরিস্কারভাবে কিছু না বললেও বোর্ড সভাপতির ভাষ্যে অনেকটাই স্পষ্ট স্কোয়াডে তাসকিনের অন্তর্ভুক্তি। যদিও চোট কাটিয়ে মাঠে ফেরার পর তাসকিন এখনো নিজেকে ঠিকভাবে প্রমাণ করতে পারেননি।

তাসকিনকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে ডাকলে দলে কোনো নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না জানিয়ে পাপন বলেন, ‘না, এটা কোনো ইমপ্যাক্ট ফেলবে না। ঐ যে বললাম না, আপনারা বেশি ভাবছেন। আপনারা ১৫ নম্বর খেলোয়াড় নিয়ে বেশি চিন্তা করছেন, আমরা ভাবছি ১১ নম্বর খেলোয়াড় নিয়ে যে মাঠে খেলবে। ওটা (কথিত ‘১৫ নম্বর খেলোয়াড়’ বা পরিবর্তনের জায়গা) নিয়ে আমরা অতো চিন্তিত না, টিম ম্যানেজমেন্টও চিন্তিত না।’

বিশ্বকাপ স্কোয়াডে সুযোগ পেয়ে এখনো কোনো ম্যাচ খেলা হয়নি রাহীর, প্রস্তুতি ম্যাচ ও উইন্ডিজের বিপক্ষে মূল ম্যাচ- দুই ম্যাচেই ছিলেন ব্রাত্য। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি তো ভেসে গেছে বৃষ্টিতেই। ফাইনাল নিশ্চিতের আগে ত্রিদেশীয় সিরিজের বাকি ম্যাচগুলোতে সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনাও কম। কেননা উইনিং কম্বিনেশন এখনই ভাঙতে চাইবে না টিম ম্যানেজমেন্ট।

সেক্ষেত্রে রাহীর বাদ পড়া নিয়ে তৈরি হতে পারে সমালোচনার জোয়ার। তবে তাসকিনকে দলে নেওয়া হলেও সেটি যে তার প্রতি দুর্বলতা থেকে নয়, বরং তাসকিনের বিশেষত্ব ‘ভ্যারিয়েশন’ এর কারণে- তা জানিয়ে নাজমুল হাসান বলেন, ‘তাসকিন কেন্দ্রিক কোনো আসক্তি (লাইকিং) নেই। আপনারা এটাকে এভাবে মিলিয়ে দিবেন না। তাসকিনের প্রতি কোনো স্পেশাল লাইকিং নেই। ভ্যারিয়েশন বৃদ্ধি পাবে তাসকিন আসলে- এটা মনে করেছে কোচ এবং টিম ম্যানেজমেন্ট।’

  ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট দিয়ে ক্রিকেট ফিরছে অস্ট্রেলিয়ায়

রাহীকে দল থেকে ‘এভাবে’ বাদ দেওয়াও উচিত হবে না জানিয়ে ফের বোর্ড সভাপতি জানান, দল থেকে বাদ পড়ার জন্যও মানসিক প্রস্তুতি থাকা উচিত।

তিনি বলেন, ‘এটাও আমরা মনে করি, যেহেতু রাহীকে একবার দলে নেওয়া হয়েছে, আমি মনে করি ওকে একটা সুযোগ দেওয়া উচিত।’

‘বাদ তো পড়তেই পারে। ইনজুরির জন্য বাদ পড়তে পারে, এমনি বাদ পড়তে পারে। প্রথমেই তো আমি বলেছি, এখান থেকে কেউ বাদ পড়তে পারে।’