খেলোয়ারদের ফিটনেস নিয়ে মন খারাপ কোটনি ওয়ালশের !!

আজ সকালে জাতীয় দলে ডাক পাওয়া সব ক্রিকেটারকে মিরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে উপস্থিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন লিগের (ডিপিএল) খেলার কারণে বেশির ভাগ ক্রিকেটারই এই কার্যক্রমে যোগ দেননি। নিজেদের উপস্থিতির জানা দিয়ে চলে গিয়েছিলেন ডিপিএলে নিজ নিজ দলের অনুশীলনে।

জাতীয় দলের ক্যাম্পে যে কয়জন যোগ দিয়েছেন তারা শুরুতেই মাঠে বোলিং, ব্যাটিংয়ের অনুশীলনে নেমেছিলেন। অথচ কথা ছিল প্রথমদিনে সবার আগে ফিটনেস নিয়ে কাজ করা হবে। পেস বোলিং কোচ ওয়ালশের কণ্ঠে ঝরল লম্বা সময়ের সফরে ভালো করতে হলে ফিট থাকার বিকল্প নেই। পেস বোলারদের চোট দুশ্চিন্তায় ফেলেছে তাকে। তবে বিশ্বকাপের আগেই সবাইকে ফিট পাবেন বলে আশা করছেন ওয়ালশ, ‘দেখুন এবারের বিশ্বকাপ অনেক লম্বা। ৯টা করে ম্যাচ খেলতে হবে সবাইকে। এই অবস্থায় ক্রিকেটারদের ফিট থাকাটায় বড় একটা চ্যালেঞ্জ। স্কোয়াডে থাকা সব পেসাররাই ছোটখাটো চোটে ভুগছে। এটা আমার জন্য দুশ্চিন্তার কারণ। আশা করি, সফরে যাওয়ার আগেই সবাই সুস্থ হয়ে উঠবে।’

সাধারণত ইংল্যান্ডের উইকেট বোলিং সহায়ক হলেও বিশ্বকাপে ব্যাটসম্যানদের জন্যই বেশি কিছু থাকবে পিচে বলে মনে করেন এই ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি পেসার। তার মতে বুদ্ধিদীপ্ত ও কৌশলী হয়ে খেললে বিশ্বকাপে সাফল্য পাওয়া খুব কঠিন হবে না।

তার ভাষায়, ‘প্রথাগতভাবে ইংল্যান্ডের উইকেট পেস সহায়ক হয়ে থাকে। কিন্তু এটা যেহেতু আইসিসির ইভেন্ট তাই উইকেট ব্যাটসম্যানদের পক্ষেই থাকবে। সাফল্য পেতে হলে আপনাকে ভালো জায়গায় বল করতে হবে। বুদ্ধি খাটাতে হবে। ইংলিশ কন্ডিশন অন্য দেশের মতো না। একটু কৌশলী হলেই আপনি ভালো করতে পারবেন।’

আজকের অনুশীলনে উপস্থিত ছিলেন মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুস্তাফিজুর রহমান, তামিম ইকবাল ও রুবেল হোসেন। প্রধান কোচ স্টিভ রোডস, পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ, ব্যাটিং পরামর্শক নিল ম্যাকেঞ্জিসহ কোচিং স্টাফের সদস্যরা।

Share:

Author: Wahed Murad

I am passionate for sports , specially in cricket and so i'll do my best to development of sports. I'm also teaching English language and trained at web design and development with fine web arts.