কৈশোর পেরোচ্ছে টাইগাররা

bangladesh test

বিংশ শতাব্দীর শেষ বর্ষে বাংলাদেশের সেই স্বপ্ন পূরণ হয়। ২০০০ খ্রিষ্টাব্দের ২৬শে জুন বাংলাদেশকে ১০ম সদস্য হিসেবে ঘোষণা করে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। ক্রিকেটের অভিভাবক খ্যাত সংস্থার একটি সন্তান বাংলাদেশ তখন থেকেই। ঐ বছরেরই ১০ নভেম্বর প্রথমবারের মতো টেস্ট খেলে বাংলাদেশ। আজ (শুক্রবার) ১০ নভেম্বর ২০১৭, টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের পদার্পনের ১৭ বছর পূর্তি।

২০০০ সালের ১০ নভেম্বর থেকে ঢাকায় শুরু হওয়া বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট ম্যাচে প্রতিপক্ষ ছিল ভারত। নবীন সদস্য হিসেবে স্বভাবতই বাংলাদেশের কপালে জুটেছিল ৯ উইকেটের বড় পরাজয়। তবে প্রথম ইনিংসে ৪০০ রান, অতঃপর ভারতকে মাত্র ২৯ রানের লিড- এই ব্যাপারগুলিই প্রমাণ করেছিল, যোগ্য দল হিসেবে টেস্টে খেলতে এসেছে বাংলাদেশ।

যদিও পরবর্তীতে এই ফরম্যাটে বাংলাদেশের উন্নতি হয়নি প্রত্যাশা অনুযায়ী। ১৭ বছরে বাংলাদেশ মোট টেস্ট ম্যাচ খেলেছে ১০৪টি। তার মধ্যে জয় মাত্র ১০টিতে। বর্তমানে টেস্ট খেলুড়ে দেশ বারোটি থাকলেও টেস্ট পরিবারে বাংলাদেশের পরের দুই সদস্য আফগানিস্তান ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে এখনও টেস্ট খেলেনি টাইগাররা। বাকি নয়টি দলের বিপক্ষে খেলে বাংলাদেশ জয় পেয়েছে মাত্র পাঁচটি দলের বিপক্ষে। টেস্ট খেলার সময় অনুযায়ী এই পরিসংখ্যান একটু দৃষ্টিকটুই।

দীর্ঘ এই সময়ে বাংলাদেশ ড্র করেছে মাত্র ১৫টি টেস্ট, হার জুটেছে ৭৯টিতেই। যদিও এই হিসেব বর্তমানের ধারালো পারফরমেন্সের বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি তুলে ধরতে নির্দ্বিধায় ব্যর্থ। বিগত কয়েক বছর ধরে ক্রিকেট মাঠের পরাশক্তির ভূমিকায় থাকা বাংলাদেশ যে উন্নতি করছে, সেটি তো স্পষ্টতই দৃশ্যমান। ধীরে ধীরে আরও এগিয়ে যাক বাংলাদেশের ক্রিকেট, সেই সাথে মাথা উঁচু করে দাঁড়াক টেস্ট ক্রিকেটেও- সতেরো বছর পূর্তির দিনে এটাই সবার প্রত্যাশা

Author: Wahed Murad

I am passionate for sports , specially in cricket and so i'll do my best to development of sports. I'm also teaching English language and trained at web design and development with fine web arts.