প্রচুর রান হবে সিলেটে

sylhet-international-cricket-stadium-bangaldesh

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কোচ মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন বলেন, ‘উইকেট দেখার সুযোগ হয়নি। তবে এখানে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হয়েছে, অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ম্যাচ হলো কিছু দিন আগে। এ সব কিছু থেকে ধারণা করছি এখানে অনেক রান হবে। তবে শেষ পর্যন্ত উইকেট না দেখে বলা কঠিন।’

একই বক্তব্য রাজশাহীর কোচ সারোয়ার ইমরান, জাতীয় দলের সাবেক নির্বাচক সাজ্জাদ আহমেদ শিপন ও সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ভেন্যু ম্যানেজার জয়দ্বীপ দাসের। স্টেডিয়ামের প্রস্তুতি সম্পর্কে জানাতে গিয়ে জয়দ্বীপ দাস বলেন, ‘এখনতো সব কাজই শেষ। মাঠ পুরোপুরি প্রস্তুত। শুধু ব্রডকাস্ট ও বিজ্ঞাপন বোর্ড লাগানোর কাজ চলছে। উইকেট তো আরো আগে প্রস্তুত করা হয়েছে। আপনারা জানেন যে বিপিএলে মানুষ চার-ছক্কা দেখতে চায়। রান দেখতে চায় তাই আমরাও সেই দিকটা খেয়াল রেখে উইকেটে যেন রান হয় তেমনটা বানানোর চেষ্টা করেছি।’

তবে এই মাঠেই সম্প্রতি অনূর্ধ্ব-১৯ দল ব্যাটিং বিপর্যয়ের কারণে মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেনি আফগানদের সামনে। ব্যাটিং বান্ধব পিচে এমন কেন হল! উত্তরে সাজ্জাদ বলেন, ‘অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ হবে নিউজিল্যান্ডে। সেই কারণে ওদের প্রস্তুত করতে উইকেট ছিল অন্যরকম। কিন্তু এখানে যে দুটি উইকেট আছে তাতে আমি যতটা জানি বা দেখেছি তাতে ব্যাটসম্যানদের সুবিধা পাওয়ারই কথা। অবশ্য দুটি উইকেটই বাউন্স আছে। তবে যারা জোরে বল করতে পারে সেসব পেসাররাই এখানে বাউন্সের সুবিধা নিতে পারবে।’

তবে আউটফিল্ড একটু ধীর গতির হতে পারে বলেও সতর্ক করে দিলেন সাজ্জাদ। তিনি বলেন, ‘উইকেট ভালো, তবে এখানকার আউটফিল্ড ড্যাম ও বেশ স্লো।’

Author: MM Rahman Bappi

UpWork ফ্রীলান্সার । ৮ বছর এস-ই-ও ক্যাটেগরিতে কাজ করার অভিজ্ঞতা । প্রায় ১৫০০ ওয়েবসাইটের এস-ই-ও প্রবলেম সল্ভ করার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ফ্রীলান্সার । গুগল এলগরিদম, এড ওয়ার্ডস, সার্চ কনসোল, এনালাইটিক্স, ডিপ লেভেল ওয়েবসাইট অডিট, কম্পিটীটর এ্যানালাইসিস, ওয়েবসাইট আর্কিটেকচার, ই-কমার্স প্রোডাক্ট এস-ই-ও কন্ট্রোল, কী-ওয়ার্ড এ্যানালাইসিস, হাই লেভেল রাঙ্ক ইম্প্রভমেন্ট, লোকাল সার্চ... ইত্যাদি যেকোন বড় ধরনের প্রবলেম সল্ভ করে ক্লাইন্টকে সহযোগীতা করাই তার কাজ । বর্তমানে ইন্ডিপেনডেন্ট এস-ই-ও কনসালটেন্ট হিসেবে কাজ করছেন ও ডেইলি স্পোর্টসবিডি নিয়ন্ত্রন করছেন । অবসর সময়ে স্ট্রিট ফটোগ্রাফি করেন ।