fbpx

নেইমারকে ‘আস্ত একটা ভাঁড়’ বললেন পেরুর ডিফেন্ডার

ফাউল আদায় করার জন্য সামান্য আঘাতকেও অনেক গুরুতর বানিয়ে মাঠে গড়াগড়ি খাওয়ার প্রবণতা নেইমারের অনেক পুরোনো। এর আগেও অনেকেই নেইমারের সমালোচনা করেছেন তার ফাউল আদায় করার ধরণ নিয়ে। এবার সেই পুরনো অভিযোগ নতুন করে জাহির করেছেন পেরুর ডিফেন্ডার কার্লোস জামব্রানো।

২০২২ কাতার বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে ব্রাজিলের মুখোমুখি হয়েছিল পেরু। ম্যাচ জুড়ে ভক্তদের চোখ ধাঁধানো ফুটবল উপহার দিয়েছেন নেইমার জুনিয়র। ম্যাচে পেরুর বিপক্ষে দুই দুইবার পিছিয়ে পড়েও নেইমার নৈপুণ্যে জয় পেয়েছে ব্রাজিল। নেইমারের হ্যাট্রিকে ভর করে পেরুকে ৪-২ গোলে হারিয়েছিল সেলেসাওরা। যদিও ম্যাচে শেষের দিকে ৯ জন নিয়ে খেলেছিল স্বাগতিক পেরু। শেষ দিকে লাল কার্ড দেখেছিল দুই পেরুভিয়ান ডিফেন্ডার কাসেদা এবং কার্লোস জামব্রানো।

ম্যাচে ২৮ এবং ৮৩ তম মিনিটে দুইটি প্যানাল্টি পেয়েছিল ব্রাজিল। তা থেকে দুইটি গোল সহ হ্যাট্রিক আদায় করে নিয়েছিলেন নেইমার। যদিও রেফারির সিদ্ধান্ত একেবারেই মেনে নিতে পারেননি জামব্রানো। তিনি মনে করেন, কোনটিই পেনাল্টি হবার যোগ্য ছিল না, নেইমার ইচ্ছা করে পড়ে গিয়ে আদায় করেছেন কাঙ্ক্ষিত পেনাল্টি।

‘লা বানদা দেল চিনো’ নামক অনুষ্ঠানে লাতিন আমেরিকার একটি টিভি চ্যানেলকে জামব্রানো বলেন, “ডি বক্সে চার থেকে পাঁচবার নেইমার আপনা আপনি পড়ে গিয়েছিল পেনাল্টি পাবার আশায়। শেষ পর্যন্ত সে সফল হত। সে দুটি পেনাল্টি পেয়েছিল, যদিও কোনোটিই পেনাল্টি হবার যোগ্য ছিল না।”

পিএসজি তারকার তীব্র সমালোচনার পাশাপাশি সামান্য প্রশংসাও করেছেন পেরুর এই ডিফেন্ডার। তিনি আরও বলেন, “সত্যি বলতে, সে দারুণ একজন ফুটবলার, বিশ্বের অন্যতম সেরা। তবে আমার চোখে সে আস্ত একটা ভাঁড়। মাঠে সে যা কিছু করে, জেনেশুনেই করে। সে ভালো ফুটবলার, কিন্তু সে সামান্যতম ফাউলও আদায় করার খোঁজে থাকে।”