fbpx

শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশের প্রস্তুতি ম্যাচের সম্ভাব্য সূচি চূড়ান্ত

দীর্ঘদিন দিন ক্রিকেটের বাহিরে থাকার পর শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার আগে সেভাবে প্রস্তুতির সুযোগ পাচ্ছেন না মুমিনুল হকের দল, একক অনুশীলনের পর এক সপ্তাহের কন্ডিশনিং ক্যাম্পকে পুঁজি করেই শ্রীলঙ্কার বিমানে উঠবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তবে টেস্ট সিরিজে মাঠে নামার আগে শ্রীলঙ্কার মাটিতে ২১ দিনের প্রস্তুতি ক্যাম্প করবে টাইগাররা, যেখানে ৩ টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে তারা।

প্রস্তুতি যতই ভালো হোক, ম্যাচ না খেললে নিজেদের সঠিক অবস্থা বুঝতে পারেন না ক্রিকেটাররা। সে কারণে শ্রীলঙ্কায় স্কিল ট্রেনিংয়ের পাশাপাশি প্রস্তুতি ম্যাচের প্রতিও গুরুত্ব দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। এ মাসের শেষ দিকেই শ্রীলঙ্কার উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বে টাইগাররা। তাদের সঙ্গী হবে হাই-পারফর্মেন্স দলও, জাতীয় দলের পাশাপাশি এইচপি দলও সিরিজ খেলবে।

বিজ্ঞাপন

তবে তার আগে ক্যাম্প চলাকালীন সময়ে জাতীয় দলের সাথে দুইটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে এইচপি দল, যার সূচিও চূড়ান্ত করে ফেলেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। ৫ অক্টোবর ও ১১ অক্টোবর দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে অংশ নেবে বাংলাদেশ ও এইচপি দল, এছাড়া আরও একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে জাতীয় দল। সেই ম্যাচে বাংলাদেশ দলের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা প্রেসিডেন্ট একাদশ, ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ১৮ অক্টোবর।

করোনা আতঙ্কে ৫ দিন বন্ধ থাকার পর আজ থেকে মিরপুরে শুরু হয়েছে ক্রিকেটারদের একক ও গ্রুপ ভিত্তিক অনুশীলন, তবে আনুষ্ঠানিক ভাবে দলের কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরু হবে ২১ সেপ্টেম্বর থেকে। যার প্রক্রিয়া শুরু হবে ১৮ সেপ্টেম্বর করোনা টেস্ট দিয়ে, যারা নেগেটিভ হবেন তাদের নেওয়া হবে হোটেল সোনারগাঁওয়ে।

ক্যাম্প শুরুর প্রথম দিনেই হবে তৃতীয় বারের মতো ক্রিকেটারদের করোনা পরীক্ষা, জাতীয় দলের পাশাপাশি ক্যাম্পে যোগ দিবেন এইচপি দলের ২৩ ক্রিকেটারও। এক সপ্তাহের কন্ডিশনিং ক্যাম্প শেষে এ মাসের শেষ দিকে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে বাংলাদেশ দল, শ্রীলঙ্কায় পৌঁছে বিসিবির নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ১৪ অক্টোবর পর্যন্ত হবে কন্ডিশনিং ক্যাম্প, এরপর জাতীয় দল থেকে এইচপি ইউনিট আলাদা হয়ে যাবে।

২১ দিনের প্রস্তুতি শেষে অক্টোবরের ২৪ তারিখে শুরু হতে পারে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার প্রথম টেস্ট, তবে এসএলসি এখনও আনুষ্ঠানিক ভাবে কোন সূচি প্রকাশ করেনি।