বর্ণ বৈষম্য নিয়ে ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ আইসিসির

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ আইসিসির

পুলিশের নির্যতনে কৃষ্ণাঙ্গ বাস্কেটবল খেলোয়াড় জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুতে পুরো বিশ্ব প্রতিবাদে উত্তাল। প্রতিদিনই বাড়ছে প্রতিবাদে সামিল হওয়া মানুষের সংখ্যা, করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও চলছে প্রতিবাদের ঝড়। লক ডাউন আর জরুরি অবস্থাও দমিয়ে রাখতে পারছে না প্রতিবাদকারীদের, তাদের সাথে এক সুরে কথা বললেন আইসিসিও।

গত ২৫ মে যওক্তরাষ্ট্রের মিনিয়াপোলিস রাজ্যে এক পুলিশ কর্মকর্তা অপরাধী সন্দেহে পথ আটকে ফ্লয়েডের উপর নির্যাতন চালান, এক ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় নির্যাতনের এক পর্যায়ে শ্বাস নিতে পারছে না বলে জানিয়েছিলেন ফ্লয়েড। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পথেই মৃত্যু হয় ৪৬ বছর বয়সী এই কৃষ্ণাঙ্গের, এরপর তার মৃত্যুকে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কিছু শহরে বিক্ষোভ শুরু হয়। দীর্ঘদিন ধরেই দেশটিতে পুলিশের হাতে নির্যাতনের শিকার হয়ে আসছিল কৃষ্ণাঙ্গরা।

প্রতিবাদের ছোয়া লেগেছে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনেও, কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর জন্য ন্যায় বিচার দাবী করেছেন বিশ্ব ক্রীড়া তারকাও। ক্রিকেটেও বাদ যায়নি প্রতিবাদ, গত সপ্তাহে দুই ক্যারাবিয়ান তারকা ক্রিকেটার ক্রিস গেইল ও ড্যারেন স্যামি প্রতিবাদকারীদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেছেন। এবার বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসিও সামিল হলেন প্রতিবাদে, তবে কিছুটা ব্যতিক্রমী ভাবে কৃষ্ণাঙ্গদের প্রতি নিজেদের সমর্থন জানিয়েছে তারা।

গতকাল এক টুইট বার্তায় আইসিসি ২০১৯ বিশ্বকাপ ফাইনালে জোফরা আর্চারের করা রোমাঞ্চকর এক ভিডিও আপলোড করে ক্যাপশনে লিখেছে, ‘বৈচিত্র্য ছাড়া ক্রিকেট কিছুই নয়, বৈচিত্র্য ছাড়া আপনি পুরো ছবিটা দেখতে পাবেন না’। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ক্যারিবিয়ান বংশোদ্ভূত জোফরা আর্চারের করা সুপার ওভারের শেষ বলটির পর বিশ্ব জয়ের আনন্দে মেতেছেন ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা।

এর আগে বর্ণ বৈষম্য নিয়ে আইসিসি ও ক্রিকেট বোর্ড গুলোকে চুপ না থাকার জন্য আহ্বান জানিয়েছিলেন বিশ্বকাপ জয়ী সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। পুলিশের নির্যাতনের ভিডিও পোস্ট করে লিখেছিলেন, গলায় হাঁটু দিয়ে চেপে ধরার ওই ভিডিও দেখার পরও যদি ক্রিকেটবিশ্ব সরব না হয়, তবে বলতে হবে তোমরাও এই সমস্যার অংশ।

CATEGORIES
TAGS