সাইফ স্পোর্টিং ফিফার নিষেধাজ্ঞার কবলে!

সাইফ স্পোর্টিং ফিফার নিষেধাজ্ঞার কবলে!


টাকা পরিশোধ করতেই হচ্ছে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবকে।

২০১৭ সালে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব যখন বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ থেকে প্রিমিয়ার লিগে উঠে তখন দলের কোচ “নিকোলা কাভাজোচিচ” ট্রায়ালের জন্য তিন জন বিদেশি ফুটবলার এনেছিলেন। সেই তিন জন ট্রায়ালে ম্যানেজমেন্টকে খুশি করতে পারেননি বরং চারিত্রিক দিক থেকে তারা ভাল ছিলেন না। যার ফলে তাদেরকে কোন টাকা না দিয়েই বিদায় জানিয়ে দেয় সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব।

স্লোভাকিয়ার ম্যাকো ভিলিয়াম, মন্টেনেগ্রোর সাভা গারদাসেভিচ ও সার্বিয়ার গোরান ওবরাদভিচ কিছু দিন আগে সেই টাকা দাবি করেছেন এবং ফিফার কাছে অভিযোগ করেছেন তারা। পরবর্তীতে তাদের টাকা পরিশোধ করে দিতে বলে ফিফা।

তবে ফিফার কথা অনুযায়ী নির্দিষ্ট টাইমে টাকা পরিশোধ করেনি সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। যার ফলে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের নতুন খেলোয়াড় রেজিস্ট্রেশনে নিষেধাজ্ঞা দেয় ফিফা।

ফিফার এ নিষেধাজ্ঞার পর ক্লাবটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার নাসিরুদ্দিন চৌধুরী বলেছেন,
“করোনার কারণে তাদের তিন জনকে টাকা পাঠানোতে দেরি হচ্ছ। ফিফার নিয়ম অনুযায়ীই আমরা টাকা পাঠিয়ে দিব। তবে তিন ফুটবলারই বাটপারি করেই টাকাটা নিচ্ছে। এ থেকে আমরা কিছু শিক্ষা অর্জন করলাম”

এছাড়া তিনি আরও বলেন,
“আমরা ফকির না, আমরা টাকা পরিশোধ করে দিবো”

এখম দেখার বিষয় সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব কত দিনের মধ্যে ওই তিন জন ফুটবলারকে পরিশোধ করে দেয়।