অসহায়ের মতো দিন কাটাচ্ছেন স্বর্ণপদক জয়ী কুস্তিগীর

অসহায়ের মতো দিন কাটাচ্ছেন স্বর্ণপদক জয়ী কুস্তিগীর

  • 194
    Shares

সারা বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় লকডাউনে ঘরবন্দী হয়ে পড়েছে দেশবাসী। এতে করে নিম্নবিত্তরা তাদের জীবিকা নির্বাহ করতে হিমশিম খাচ্ছে। বর্তমান পরিস্থিতির মধ্যে অনাহারে দিন কাটাতে হচ্ছে বাংলাদেশের স্বর্ণপদক বিজয়ী কুস্তিগীর মুক্তির।

স্বর্ণজয়ী কুস্তিগীর মুক্তি বছর দুয়েক আাগে ২০১৮ সালে জাতীয় যুব গেমসে ৪৮ কেজি ওজন শ্রেণিতে রৌপ্য পাদক অর্জন করেছিলেন এবং গেল বছর জাতীয় জুনিয়র কুস্তিতে ৪০ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণপদক অর্জন করেছেন মুক্তি।

এছাড়াও জুডোতে রৌপ্য পদক এবং ব্রোঞ্জ পদক অর্জনের সুনাম রয়েছে মুক্তির। আর সেই পদক জয়ী মুক্তি বর্তমান মহামারি পরিস্থিতিতে অনাহারে দিন কাটাচ্ছেন।

বর্তমান পরিস্থিতিতে স্বর্ণজয়ী মুক্তির যেন দেখার কেউ নেই। আয়ের কোন উৎস না থাকায় অনাহারে দিন কাটাতে হচ্ছে মুক্তির পরিবারকে। মুক্তির পরিবারে মা, বাবা, ছেলে সহ ছোটবোন মিলে মোট ৫ জন সদস্য।

স্বর্ণপদক জয়ী কুস্তিগীর মুক্তি জানান,

“আমার বাবার এখন কোন কাজ নেই, তাই না খেয়েই দিন কাটাতে হচ্ছে আমাদের। আমার বোন বাসাবাড়িতে কাজ করে যে খাবার পায় তাই দিয়ে কোন মতে এক বেলা খাই এবং বাকি দুই বেলা আলু সেদ্ধ আর মুড়ি খেয়ে দিন কাটছে আমাদের”।

তিনি আরও বলেন,

“কুস্তি ফেডারেশন থেকে সাহায্য দূরের কথা, কেউ খোঁজ খবর পর্যন্ত নেয়নি আমাদের। খুব কষ্টের মধ্যে দিন যাচ্ছে আমাদের। একসময় কত পদক অর্জন করেছি, সেই সব পদক এখন কোন কাজেই আসছে না”।

কুস্তিগীর মুক্তির কোচ আহসান কবির বাবু বলেন,

“মুক্তির পরিবার খুব কষ্টের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। গাড়ি ভাড়া না থাকায় তিন কিলোমিটার পায়ে হেঁটে রাজশাহীর মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়ামে অনুশীলন করতে আসতো মুক্তি। মাঝেমধ্যে আমি যতটুকু পারি সহযোগিতা করি। পারলে মুক্তিকে সহযোগিতা করার চেষ্টা করবেন”।


  • 194
    Shares
TAGS