অসাধারণ মাইলফলকে অধিনায়ক মাশরাফি

Mashrafe

সিরিজ বা র‌্যাংকিং নয়, আজকের ম্যাচটা অধিনায়ক মাশরাফির জন্যই লড়বে বাংলাদেশ। রোববার (২২ অক্টোবর) দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে টস করতে নেমেই অধিনায়ক মাশরাফি দুর্দান্ত একটি মাইলফলক স্পর্শ করলেন।

ইস্ট লন্ডনে অনুষ্ঠিত এ ম্যাচের মধ্যদিয়ে ৫০টি ওয়ানডেতে নেতৃত্ব দেওয়া ক্রিকেটার হলেন তিনি। মাশরাফির আগে বাংলাদেশি হিসেবে আরও দু’জন ৫০ বা তার বেশি ম্যাচে লাল-সবুজদের নেতৃত্ব দিয়েছেন। দেশের সাবেক সফল অধিনায়ক হাবিবুল বাশার এখন পর্যন্ত ৬৯ ম্যাচে দলকে নেতৃত্ব দিয়ে শীর্ষে আছেন। এছাড়া বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ঠিক ৫০ ম্যাচে দলের অধিনায়ক ছিলেন।

৩৪ বছর বয়সী মাশরাফি ২০০৯ সালে সর্বপ্রথম অধিনায়ক হিসেবে নিজের নাম লেখান। তবে সেবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ইনজুরির কারণে প্রথম টেস্টের মাঝেই ছিটকে যান। সেটি আবার তার ক্যারিয়ারে অধিনায়ক হিসেবে প্রথম টেস্ট ছিলো। নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত এ তারকার ওয়ানডে অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক ঘটে ২০১০ সালে। সেবার ব্রিস্টলে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঐতিহাসিক জয়টি তার অধীনেই আসে।

তবে ইনজুরি আবারও তার ক্যারিয়ারে ব্যাঘাত ঘটায়। ঢাকায় নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ওডিআইতে চোটে পড়েন। ইনজুরিতে দীর্ঘ সময়ের জন্য ছিটকে যান মাশরাফি। তার পরিবর্তে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেন সাকিব আল হাসান। পরবর্তীতে ২০১৪ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর পর্যন্ত অধিনায়ক ছিলেন মুশফিকুর রহিম। তবে সেই সফরের পর মুশফিককে সরিয়ে ফের মাশরাফিকে নেতৃত্ব বুঝিয়ে দেয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

এরপরের গল্পটা ইতিহাসের অংশ। ম্যাশের নেতৃত্বে একে একে সফলতা আসতে থাকে বাংলাদেশ শিবিরে। যার শুরুর দিকেই ছিলো ২০১৫ বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নেওয়া। দেশের মাটিতে সিরিজ জিতে পাকিস্তান, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার মতো শক্তিশালী দলের বিপক্ষে। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে খেলার গৌরব অর্জন করে টাইগাররা। মাশরাফি দলকে ওয়ানডে ৠাংকিং ৯ থেকে প্রথমবার ৬-এ নিয়ে আসেন (বর্তমানে সপ্তম)। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ দলকে ৪৯ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে ২৭টিতে জয় তুলে নিয়েছেন

Share:

Author: MM Rahman Bappi

UpWork ফ্রীলান্সার । ৮ বছর এস-ই-ও ক্যাটেগরিতে কাজ করার অভিজ্ঞতা । প্রায় ১৫০০ ওয়েবসাইটের এস-ই-ও প্রবলেম সল্ভ করার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ফ্রীলান্সার । গুগল এলগরিদম, এড ওয়ার্ডস, সার্চ কনসোল, এনালাইটিক্স, ডিপ লেভেল ওয়েবসাইট অডিট, কম্পিটীটর এ্যানালাইসিস, ওয়েবসাইট আর্কিটেকচার, ই-কমার্স প্রোডাক্ট এস-ই-ও কন্ট্রোল, কী-ওয়ার্ড এ্যানালাইসিস, হাই লেভেল রাঙ্ক ইম্প্রভমেন্ট, লোকাল সার্চ... ইত্যাদি যেকোন বড় ধরনের প্রবলেম সল্ভ করে ক্লাইন্টকে সহযোগীতা করাই তার কাজ । বর্তমানে ইন্ডিপেনডেন্ট এস-ই-ও কনসালটেন্ট হিসেবে কাজ করছেন ও ডেইলি স্পোর্টসবিডি নিয়ন্ত্রন করছেন । অবসর সময়ে স্ট্রিট ফটোগ্রাফি করেন ।