অ্যালিস আহম্মেদের পর আরেক সম্ভাবনাময়ী আফ্রিদির আগমন

এবারের বিপিএলে যেন স্পিনারের অাগমন ঘটছেই।

চট্টগ্রামের এই কিশোরকে প্রতিভাবান একজন বোলার মনে করেন বোলিং কোচ মোহাম্মদ রফিক। তিনি বলেন, “হতে পারে ছেলেটা নতুন এসেছে। তবে এটা কিন্তু একটা চমক হবে যদি সে খেলতে পারে। ভালো দিক হচ্ছে ছেলেটা কথা শোনে এবং কাজ করে। তার যদি এখানে অভিষেক হয়, তাহলে পরের বছরের মধ্যেই সে কিন্তু ব্যাটসম্যানদের জন্য আতঙ্কে পরিণত হবে।”

বাংলাদেশ জাতীয় দলেরও একদিন সে প্রতিনিধিত্ব করবে বলে মনে করেন মোহাম্মদ রফিক, “আমি ওর ভেতর যা গুণ দেখছি, বাংলাদেশের ক্রিকেটকে অনেকদূর এগিয়ে নিয়ে যাবে। আমি এতটুকু নিশ্চয়তা দিতে পারি, ও যদি একটা বছর পরিশ্রম করে, তাহলে এক-দেড় বছরের মধ্যে বাংলাদেশ দলে খেলবে। তাতে শুধু এই ছেলেটার ভাগ্য খুলবে না, আমি মনে করি বাংলাদেশের ভাগ্যও অনেকদূর নিয়ে যাবে।”

কিশোর আফ্রিদিকে রংপুরের স্কোয়াডে রাখার প্রসঙ্গে রংপুর রাইডার্সের ম্যানেজার জানান, “ওকে, আমরা নিয়ে এসেছিলাম নেট বোলার হিসেবে। নেটে যখন বল করল, কোচ টম মুডি ও রফিক ভাই জানালো ছেলেটার মধ্যে সম্ভাবনা আছে। ক্রিকেট বোর্ড যখন একটা সুযোগ দিল ড্রাফটের বাইরে থেকে যেকোনো একজন খেলোয়াড় নিতে পারবো, আর আফ্রিদিও খুব ভালো করছিল, তাই আমরা চিন্তা করলাম টিমে নিয়ে নেই। নেট বোলার হিসেবে না, স্কোয়াডের সদস্য হিসেবেই সে এখন আমাদের সঙ্গে আছে।”

Author: Wahed Murad

I am passionate for sports , specially in cricket and so i'll do my best to development of sports. I'm also teaching English language and trained at web design and development with fine web arts.